টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা ইয়াবা কারবারী নিহত

হুমায়ূন রশিদ / পিকলু দত্ত :: টেকনাফে মাদকের চালান নিয়ে অনুপ্রবেশের সময় সীমান্ত রক্ষী বিজিবি জওয়ানদের সাথে বন্দুকযুদ্ধে এক রোহিঙ্গা মাদক কারবারী নিহত হয়েছে। ঘটনাস্থল হতে ২লাখ ৪০হাজার ইয়াবা ও আগ্নেয়াস্ত্র অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।
জানা যায়, ১৭ মে (রবিবার) ভোরের দিকে টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের নয়াপাড়া বিওপির বিশেষ টহল দল মাদকের চালান আসার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মোচনী ও নয়াপাড়া লবনের মাঠে কৌশলী অবস্থান নেন। কিছুক্ষণ পর উক্ত পয়েন্ট দিয়ে কয়েকজন লোক বস্তা নিয়ে আসতে দেখে দাড়ানোর জন্য চ্যালেঞ্জ করলে মাদক কারবারী চক্রের সদস্যরা বিজিবিকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে। এতে বিজিবির দুই সদস্য আহত হয়।

পরে বিজিবিও আতœরক্ষার্থে পাল্টা গুলিবর্ষণ করলে মাদক কারবারী চক্রের সদস্যরা পালিয়ে যায়। তারপর ঘটনাস্থল তল্লাশী করে ২লাখ ৪০হাজার ইয়াবা, ১টি ধারালো কিরিচ, ১টি দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র ও ২ রাউন্ড কার্তুজসহ গুলিবিদ্ধ অবস্থায় বালুখালী ৯নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বøক-এইচ/৬ এর বাসিন্দা খাইরুল আমিনের পুত্র মোঃ সাকের (২২) কে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য টেকনাফ উপজেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে আহত বিজিবি জওয়ানদের চিকিৎসা দিয়ে গুলিবিদ্ধ মাদক কারবারীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়। সেখানে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃতদেহ উদ্ধার করে পোস্টমর্টেমের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।
টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান (পিএসসি) এই মাদক বিরোধী অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করেন বলেন, উক্ত বিষয়ে তদন্ত স্বাপেক্ষে পৃথক মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।
💝সংবাদটি লাইক এবং শেয়ার করুন…

শেয়ার করুন !

Daily Vorer Teknaf

সুন্দর আগামী বিনিমার্ণে একটি অঙ্গীকারবদ্ধ সংবাদ মাধ্যম। দৈনিক ভোরের টেকনাফ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *