ইসলামাবাদে কৃষ্ণমন্দির নির্মাণ বন্ধ করে দিল পাক সরকার

ভোরের টেকনাফ ডেস্ক::

পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে মন্দির নির্মাণ স্থগিত করলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।  ইসলামি সংগঠন জামিয়া আশরাফিয়ার জারি করা ফতোয়ার পর এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে জানিয়েছে, ইসলামাবাদে প্রস্তাবিত প্রথম শ্রীকৃষ্ণ মন্দির নির্মাণের কাজ আপাতত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান সরকার।

অনেকেই মনে করছেন, মুসলিম কট্টরপন্থীদের ফতোয়ায় ভয় পেয়ে পিছু হটলেন ইমরান খান। কয়েক দিন আগেই তাঁর সরকার ওই মন্দির নির্মাণের জন্য ১০ কোটি টাকা অনুদান দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিল। ইসলামাবাদের এইচ-৯/২ সেক্টরে ওই মন্দির নির্মাণের কথা ছিল। পাকিস্তানের মানবাধিকার বিষয়ক সংসদীয় সম্পাদক লাল চাঁদ মাহি গত সপ্তাহেই মাটি খুঁড়ে মন্দির প্রতিষ্ঠার কাজের উদ্বোধন করেছিলেন।

তবে দুদিন আগে জামিয়া আশরাফিয়া নামের একটি ইসলামিক সংগঠন মন্দির প্রতিষ্ঠা নিয়ে প্রশ্ন তোলে। জামিয়া আশরাফিয়া মন্দির নির্মাণ থামাতে ফতোয়া জারি করে। তাদের দাবি ছিল, পাকিস্তানে সংখ্যালঘুদের যে কয়েকটি ধর্মস্থান রয়েছে সেগুলো রক্ষণাবেক্ষণ করা যেতে পারে। কিন্তু নতুন করে আর কোনো মন্দির নির্মাণ করা যাবে না। জনগণের করের টাকায় মন্দির নির্মাণ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল ওই সংগঠন।

তাদের জারি করা ফতোয়ার পর পাকিস্তান সরকার মন্দির নির্মাণের কাজ স্থগিত রাখল।

যদিও লাল চাঁদ মাহি বলেছিলেন, কোনো বাধা তারা আর মানবেন না। মন্দির প্রতিষ্ঠা হচ্ছেই।

তবে চাপের মুখে তিনিও নতিস্বীকার করতে বাধ্য হলেন।

পাকিস্তানের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সংখ্যালঘুদের ধর্মীয় ভাবাবেগের মূল্য দেওয়া হবে। তবে আপাতত মন্দির নির্মাণের কাজ বন্ধ রাখা হবে। ভবিষ্যতে ওই মন্দির নির্মাণের জন্য অনুদান দেওয়ার ব্যাপারে চিন্তা করা হবে।

💝সংবাদটি লাইক এবং শেয়ার করুন…

শেয়ার করুন !

Daily Vorer Teknaf

সুন্দর আগামী বিনিমার্ণে একটি অঙ্গীকারবদ্ধ সংবাদ মাধ্যম। দৈনিক ভোরের টেকনাফ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *