যুবলীগের ৪৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে নানা আয়োজন

ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন আওয়ামী যুবলীগের ৪৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে শেখ ফজলুল হক মনির নেতৃত্বে ১৯৭২ সালের ১১ নভেম্বর রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এক যুব কনভেনশনের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠা লাভ করে সংগঠনটি।

বঙ্গবন্ধুর আদর্শের আদলে অসাম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক ও শোষণমুক্ত বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে যুব সমাজকে সম্পৃক্ত করার লক্ষ্য নিয়েই প্রতিষ্ঠিত হয় এই সংগঠন। ৪৮ বছরের পথচলায় যুবলীগের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস রয়েছে। গত চার দশকের বেশি সময় ধরে দীর্ঘ লড়াই-সংগ্রাম ও হাজারো নেতাকর্মীর আত্মত্যাগের মাধ্যমে যুবলীগ আজ দেশের সর্ববৃহৎ যুব সংগঠনে পরিণত হয়েছে।

গত বছরের ২৩ নভেম্বর সপ্তম কংগ্রেসে যুবলীগের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন শেখ ফজলে শামস পরশ এবং সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল।

১৯৭২ সালে আহ্বায়ক কমিটি হওয়ার পর আওয়ামী যুবলীগের প্রথম কংগ্রেস হয় ১৯৭৪ সালে। প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হন শেখ ফজলুল হক মনি। এরপর ১৯৭৫ সালে তার মৃত্যুর পর দ্বিতীয় কংগ্রেস ১৯৭৮ এবং তৃতীয় কংগ্রেস হয় আট বছর পর। চতুর্থ কংগ্রেস ১০ বছর পর, পঞ্চম কংগ্রেস ৭ বছর এবং ষষ্ট কংগ্রেস হয় ৯ বছর পরে।

এরপরও যুবলীগ নেতাদের কারণে বিতর্কের মুখে পড়ছে সংগঠনটির ভাবমূর্তি। তারপরও বিতর্কের কালিমা মুছে প্রতিষ্ঠাকালীন আদর্শে ফেরার প্রত্যয় জানিয়েছেন যুবলীগের দায়িত্বে থাকা নেতারা।

দায়িত্ব গ্রহণের পর প্রথম বছরই করোনার কারণে সংগঠনটি চেষ্টা করেছে মানবিক কর্মসূচিতে সবাইকে সম্পৃক্ত করার। বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ বলেন, ‘রাজনীতির বেসিক প্রিন্সিপাল হচ্ছে মানুষের সেবা করা। মানুষের পাশে দাঁড়ানো। নির্যাতিত, নীপিড়িত মানুষের পাশে দাঁড়ানো। যার জন্য বঙ্গবন্ধুও সংগ্রাম করেছেন এবং রাজনীতি করেছেন ওই বেসিক প্রিন্সিপালে ফেরত যাওয়া।’

কর্মসূচি

যুবলীগের ৪৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ দেশ বিদেশের প্রতিটি ইউনিটে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে। বুধবার সকাল ১০টায় ধানমন্ডি বঙ্গবন্ধু ভবনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ। সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে বনানী কবরস্থানে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যানসহ ‘৭৫ এর ১৫ আগস্ট নিহত সব শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন ও ফাতেহা পাঠ এবং মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে যুবলীগের প্রতিটি ইউনিট বৃক্ষরোপন কর্মসূচি পালন করবে। এছাড়াও দুস্থদের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরণ করা হবে।

শেয়ার করুন !

Daily Vorer Teknaf

সুন্দর আগামী বাস্তবায়নে এটি একটি অঙ্গীকারবদ্ধ অনলাইন সংবাদ মাধ্যম। 'দৈনিক ভোরের টেকনাফ' সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য প্রিয় পাঠকদের প্রতি অনুরোধ করা হল। ধন্যবাদ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *